আইন আদালত

৬ মাসের জামিন পেলেন খালেদা জিয়া !

এফপি

ডেস্কনিউজ; কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে বাসে পেট্রোল বোমা হামলার ঘটনায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে করা মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ছয় মাসের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

এই মামলায় জামিন চেয়ে খালেদা জিয়ার করা আবেদনের শুনানি নিয়ে সোমবার বিচারপতি একেএম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি এসএম মজিবুর রহমান সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাজা হওয়ায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে থাকা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ওই মামলাতেও জামিন পেয়েছেন। তবে আরও কয়েকটি মামলায় জামিন না পাওয়ায় এখনই খালেদা জিয়া কারাগার থেকে মুক্তি পাচ্ছেন না বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা।

এদিন আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, এ জে মোহাম্মদ আলী ও মাহবুব উদ্দিন খোকন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। তার সঙ্গে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. বশিরুল্লাহ।

দেশজুড়ে ২০ দলীয় জোটের অবরোধ কর্মসূচি চলাকালে ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ভোররাতে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের জগমোহনপুরে একটি বাসে পেট্রোল বোমা ছোড়ে দুর্বৃত্তরা। এতে আট যাত্রী দগ্ধ হয়ে মারা যান, আহত হন ২০ জন। ওই ঘটনায় খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে হত্যার অভিযোগে ও বিস্ফোরক আইনে মামলা করে পুলিশ। পরে পুলিশের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিস্ফোরক আইনের মামলাটি বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় রূপান্তর করা হয়।

তার আগে এ মামলায় হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেছিলেন খালেদা জিয়া। তখন ওই আবেদনের শুনানি শেষে ২৬ জুলাইয়ের মধ্যে বিচারিক আদালতকে জামিন আবেদন নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্টের একই বেঞ্চ। এর পর ২৬ জুলাই কুমিল্লার বিশেষ ট্রাইব্যুনাল-১ খালেদা জিয়ার জামিন নামঞ্জুর করে আদেশ দেন। এ পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৯ জুলাই ফের হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় জামিন আবেদন করেন খালেদা জিয়া। ওই আবেদনের শুনানি নিয়ে সোমবার তাকে ছয় মাসে জামিন দিলেন আদালত।