রাজনীতি

হলের বাইরে ভোটকেন্দ্রের দাবিতে চার দিনের আলটিমেটাম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে চার দিনের আলটিমেটাম দিয়েছে বামপন্থী ছাত্রসংগঠনগুলোর মোর্চা প্রগতিশীল ছাত্রজোট। আগামী ১১ মার্চ অনুষ্ঠেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচনের ভোটকেন্দ্র আবাসিক হলের বাইরে একাডেমিক ভবনে করা এবং বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিশ্চিতের দাবিতে এই আলটিমেটাম। এই সময়ের মধ্যে দাবি বাস্তবায়ন না হলে ১৮ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কার্যালয় ঘেরাও করবেন তাঁরা।

হলের বাইরে ভোটকেন্দ্রের দাবিতে আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যানটিন থেকে মিছিল বের করে কেন্দ্রীয় প্রগতিশীল ছাত্রজোট। বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ ও কলাভবন ঘুরে মিছিলটি প্রশাসনিক ভবনে অবস্থিত উপাচার্যের কার্যালয়ে যায়। কার্যালয়ের বাইরে অবস্থান নিয়ে সমাবেশ করেন জোটের নেতা-কর্মীরা।সমাবেশে জোটের সমন্বয়ক ও বিপ্লবী ছাত্রমৈত্রীর কেন্দ্রীয় সভাপতি ইকবাল কবীর বলেন, ‘বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে ক্ষমতাসীন দলের ছাত্রসংগঠনের আধিপত্য ও দখলদারি জারি রয়েছে। এ অবস্থায় হলে ভোটকেন্দ্র করা হলে নির্বাচনকেও তারা প্রভাবিত করবে। নির্বাচনের আলোচনা শুরু হওয়ার পর থেকেই আমরা ও বেশির ভাগ সংগঠন হলের বাইরে একাডেমিক ভবনে ভোটকেন্দ্র করার দাবি জানিয়ে আসছি। কিন্তু ছাত্রলীগকে সুবিধা দিতে প্রশাসন অগণতান্ত্রিকভাবে সেই দাবি উপেক্ষা করেছে। আমরা মনে করি, এ পদক্ষেপ বিশ্ববিদ্যালয়কে আরও অগণতান্ত্রিক পরিস্থিতির দিকে নিয়ে যাবে।’

সমাবেশে অন্যদের মধ্যে ছাত্র ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক লিটন নন্দী, ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি গোলাম মোস্তফা, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইমরান হাবিব প্রমুখ বক্তব্য দেন।

উপাচার্য কার্যালয়ের বাইরে ঘণ্টাব্যাপী অবস্থান ও সমাবেশ শেষে উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করে তাঁদের দাবির বিষয়ে কথা বলে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের প্রতিনিধিরা। উপাচার্য তাঁদের বক্তব্য শুনলেও কোনো আশ্বাস দেননি। পরে দাবি মানতে চার দিনের আলটিমেটাম দিয়ে ফিরে যান জোটের নেতা-কর্মীরা।