লাইফস্টাইল

স্মৃতিশক্তি তাজা রাখতে যা করবেন

আপনি কি কাজের চাপে প্রায়ই এটা-সেটা ভুলে যাচ্ছেন বা আপনার স্মৃতিশক্তি দুর্বল হয়ে পড়ছে ? এর পরিণাম কিন্তু হতে পারে ভয়ংকর৷ তাই বিভিন্ন গবেষণা থেকে প্রাপ্ত তথ্য থেকে জেনে নিন সতর্কতা এবং স্মৃতিশক্তিকে মজবুত করার কিছু উপায়-

প্রযুক্তির কল্যাণে আজ আর অনেক কিছুই মনে রাখতে হয় না৷ ফোন নম্বর জমা থাকে স্মার্ট ফোনের অন্দরে, বোতাম টিপলে সে এসে হাজির হয়৷ মনে রাখতে হয় না জন্মদিন, বিবাহ বার্ষিকী বা মিটিংয়ের তারিখ, মোবাইলে অ্যালার্ম সেট করে দিলেই ঝামেলা শেষ৷ রাস্তাঘাট চেনার সমস্যা থেকেও মুক্তি দিয়েছে নানা অ্যাপ।

স্মৃতিশক্তি,১১২মনে রাখার কোষেদের গায়ে তাই মরচে পড়ছে৷ সঙ্গে যুক্ত হয়েছে আমাদের কিছু অভ্যাস ও বদভ্যাস৷ যেমন, সঠিক খাবার না খাওয়া, শুয়ে–বসে থাকা, একসঙ্গে একাধিক কাজ করা৷ যুক্ত হয়েছে মদ্যপ হয়ে ওঠার  ‘আনন্দ’, সপ্তাহান্তের বাধ্যতামূলক ‘লেট নাইট’, কম ঘুমিয়ে বেশি কাজ করার ছটফটানি ও প্রবল মানসিক চাপ৷

স্মৃতিশক্তি কমাতে যাদের বেশ ভালো ভূমিকা আছে৷ কাজেই বিপদ কমাতে চাইলে এ সব দিকে কিছুটা অন্তত নজর দেওয়া প্রয়োজন।

পর্যাপ্ত ঘুম : রাতে ৬ ঘণ্টার কম ঘুম হলে তা বার্ধক্য প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করতে মস্তিষ্কে বাঁধার সৃষ্টি করে, জানান রচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ড. মাইকেন নেডেরগার্ড৷ তিনি জানান, এর জন্য জরুরি হচ্ছে গভীর ঘুম৷ এটা না হলে মস্তিষ্ক প্রায় সাত বছর বেশি বুড়িয়ে যেতে পারে৷ এছাড়া স্মৃতিশক্তি বাড়ানোর আরো কিছু সহজ উপায় আছে।স্মৃতিশক্তি,১২

মস্তিষ্কের জন্য ঠান্ডা ঘরই ভালো : গরমের চেয়ে ঠান্ডায় স্মৃতিশক্তি এবং মনোযোগ তিনগুণ বেশি থাকে৷ এ কথা জানান নিউ সাউথ ওয়েল্স বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্ট্রেলিয়ান মনোবিজ্ঞানী প্রফেসার ইয়োসেফ ফোরগাস৷ এছাড়া ঠান্ডা ঘর মাথাকেও ঠান্ডা রাখে, তাই ঘরের তাপমাত্রা কখনো ২১ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি রাখা ঠিক নয়, জানান তিনি৷শক্তি,১২

গল্প শেষ থেকে শুরু করুন : একটি গল্প পড়ে পুরো গল্পটা মনে রাখুন৷ এবার শুরু থেকে না বলে শেষ বা পেছন থেকে গল্পটা মনে করতে থাকুন৷ এই পন্থা মস্তিষ্কের কোষগুলোকে সচল তো রাখবেই, করবে আরো শক্তিশালী৷বই,১১

নিয়মিত হাঁটাচলা বা জগিং শরীরকে ভালো রাখে : এ কথা কম-বেশি আমরা সকলেই জানি৷ সেন্ট লুইস বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোবিজ্ঞানী মার্ক ম্যাকডানিয়েল জানান, শুধু শরীর নয় হাঁটাচলা এবং জগিং ব্রেনকেও ফিট রাখে৷ তবে সবচেয়ে ভালো হয় সপ্তাহে দুই থেকে তিনদিন অন্তত ২০ মিনিট করে হাঁটলে বা জগিং করলে৷শক্তি,১

বিপরীত হাত ব্যবহারের অভ্যাস : যাঁরা ডান হাতে সব কিছু করেন, তাঁরা বাঁ হাতে আর যাঁরা বাঁ হাতে সব কিছু করেন, তাঁরা ডান হাতে সপ্তাহে অন্তত একবার সব কাজ করার চেষ্টা করুন৷ অর্থাৎ উল্টো হাতে খাওয়া-দাওয়া, দাঁতব্রাশ করা বা অন্যান্য টুকটাক ঘরের কাজ করার অভ্যাস করতে পারেন৷ এতেও ব্রেন সচল থাকে৷ছবি,১২

বন্ধুত্ব লালন করুন : মানুষের সাথে কথাবার্তা বলা বা টেলিফোনে যোগাযোগ মস্তিষ্ককে তরুণ রাখে৷ এই তথ্যটি জানিয়েছেন এডিনবার্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের নিউরোলজিস্ট ড. স্টুয়ার্ট রিচি৷ তিনি বলেন, দিনে মাত্র ১০ মিনিটের যোগাযোগই নাকি মানুষের স্মৃতিশক্তিকে বেশ জোড়ালোভাবে জাগিয়ে তুলতে সহায়তা করে৷বন্ধুত্ব,১১