লাইফস্টাইল

সৌদি প্রবাসীর সঙ্গে ১ রাত কাটিয়ে স্ত্রী পালালেন প্রেমিকের সঙ্গে, অতঃপর ঘটলো এক ভয়াবহ কান্ড

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে ১২ বছর পর স্বামী বিদেশ থেকে দেশে এলে তার সঙ্গে একদিন সংসার করে পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়েছে তার স্ত্রী। এ ঘটনায় গত রোববার প্রবাস ফেরত স্বামী বাদী স্ত্রী ও তার পরকীয়া প্রেমিকের বিরুদ্ধে মুন্সীগঞ্জ আদালতে মামলা দায়ের করেন।

জানা গেছে, উপজেলার ভাগ্যকূল মান্দ্রা এলাকার সৌদি আরবপ্রবাসী আবুল কালামের সঙ্গে ১২ বছর আগে একই এলাকার কাদির দেওয়ানের মেয়ে মুক্তা আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর আবুল কালাম সৌদি আরব চলে যান। বিদেশে থাকাবস্থায় তার অর্জিত সব টাকা স্ত্রী মুক্তা আক্তারের নামে ন্যাশনাল ব্যাংক ভাগ্যকূল শাখার অ্যাকাউন্টে পাঠান।

গত শুক্রবার (২৫ মে) আবুল কালাম দেশে এলে স্বামীর সঙ্গে একদিন থাকার পরই স্ত্রী মুক্তা আক্তার সিরাজদিখান উপজেলার মালখানগর এলাকার আ. শহীদের ছেলে নাহিদের সঙ্গে পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়ার সময় মুক্তা ১১ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ সাড়ে ৯ লাখ টাকা নিয়ে গেছে বলে আবুল কালাম দাবি করেন।

পালিয়ে যাওয়ার একদিন পর মুক্তা মোবাইল ফোনে জানায়, সে তার স্বামী আবুল কালামকে গত ফেব্রুয়ারি মাসে তালাক প্রদান করেছে।এ ব্যাপারে মুক্তা আক্তারের মা রানু বেগম জানান, স্বামীর বাড়ি থেকেই তার মেয়ে অন্য কোথাও চলে গেছে। এখন আর তার সঙ্গে আমাদের কোনো যোগাযোগ নেই। শ্রীনগর থানার ওসি আলমগীর হোসেন বলেন, এ বিষয়ে মামলা হয়েছে।

এদিকে প্রশ্ন উঠেছে, স্বামীর বাড়ীতে আসার পর কেন মুক্তা একদিন থেকে তারপর পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন? তিনি তো এর আগেও যেতে পারতেন!