সারাদেশ

সুন্দরী সানিয়া মির্জা এবং শোয়েব মালিকের সন্তান কোন দেশের হয়ে খেলবে?

সানিয়া মির্জা ও শোয়েব মালিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :তিনি ভারতীয় ৷ তাও আবার যে সে ভারতীয় নন ৷ দেশের হয়ে কোর্টে খেলতে নামেন বলে কথা ৷ কিন্তু বিয়ে করলেন কি না একজন পাকিস্তানি কে! তাও যদি বা হল, কিন্তু মুশকিল হল গিয়ে, সে বান্দাও তো তাঁর দেশের জার্সি গায়ে মাঠে নামেন৷ বলতে গেলে দুজনেই যখন নিজের নিজের দেশের হয়ে খেলতে নামেন তখন গ্যালারিতে উত্তেজনার বাঁধ ভেঙে পড়ে৷ নিজের দেশকে জেতাতেই হবে৷ দেশবাসীর প্রত্যাশার চাপ, ভালবাসা বুকে নিয়ে খেলতে নামা৷ এমন দুই চির প্রতিদ্বন্দ্বী দেশের দুই অধিবাসীর বিয়ে হল৷ খানিকটা যেন রূপকথার
গল্প৷ ধূমধামও কিছু কম হল না৷ কি আর করা যাবে, একেই যে বলে ভালবাসা৷ তবে খেলার মাঠে যাই থাক, এই দুই লায়লা- মজনুর নাগরিকত্ব যাই হোক না কেন, দুজনের প্রেম কিন্তু বিন্দুমাত্র কমেনি৷ আসলে হায়দরবাদী
সুন্দরী সানিয়া মির্জা ও পাকিস্তানের শোয়েব মালিকের কথা বলছিলাম৷ এদেশের মেয়ে দেখতে দেখতে পাকিস্তানে গিয়ে ৭ বছর সংসারও করে ফেলল৷ কিন্তু প্রশ্নটা সেখানে নয়৷ ভারতীয় এক টিভি চ্যানেলের এক টক শোয়ে স্বনামধন্য পরিচালক সাজিদ খানের প্রশ্নটা ছিল, এই দুই ভারতীয়- পাকিস্তানির প্রেমের মাঝে তো
আরও একজন আসবে৷ তবে তার কি হবে? মানে, পরিচালক সাজিদ খান সানিয়াকে প্রশ্ন করেছিলেন তাঁর সন্তান হলে, সেও যদি ক্রীড়াজগতে ই আসে তবে তিনি কোন দেশের হয়ে খেলতে নামবেন? সত্যিই তো তাই৷ কিন্তু সানিয়া কি উত্তর দিলেন জানেন? তিনি নাকি বিষয়টি নিয়েই এখনও ভেবে ওঠেননি৷ সানিয়া মির্জার
কথায় তাঁর সন্তান খেলোয়াড় না হয়ে চিকিৎসক, আইনজীবী, শিক্ষক অথবা শিক্ষিকাও তো হতে পারে৷ তাই এ বিষয়ে শোয়েব মালিকের সঙ্গে তাঁর কোনও কথা হয়নি বলেই হাসতে হাসতে জবাব দেন সানিয়া৷ তবে তিনি একজন ভারতীয় হিসাবে যেমন গর্বিত, শোয়েবও তাঁর পাকিস্তানি হওয়ার জন্য গর্বিত৷ তবে তাঁদের স্বামী- স্ত্রী সম্পর্কে নাগরিকত্ব বাধা হয়ে দাঁড়ায় না বলে সাফ জানান হায়দরবাদি সুন্দরী৷