সারাদেশ

শিশু ধর্ষণই তার নেশা !

এফপি

ডেস্কনিউজ; দুই শিশু ধর্ষণ মামলার আসামি মহসিন আলি শেখকে (৩৫) গ্রেফতার করেছে মুন্সীগঞ্জ সদর থানা পুলিশ। দীর্ঘদিন পলাতক থাকা এ আসামিকে ধরতে প্রায় ৬ মাস ধরে পুলিশের চেষ্টা চলছিল। আজ বুধবার (৫ সেপ্টেম্বর) ভোর ৪টার দিকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) গাজী মো. সালাউদ্দিন জানান, মুন্সিগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার রঘুরামপুর এলাকার আকমত আলি ওরফে আফতাব আলি শেখের ছেলে মহসিন। তবে দীর্ঘদিন আগেই তারা বাড়িঘর বিক্রি করে চলে যায়। তার বিরুদ্ধে থানায় শিশু ধর্ষণের দু’টি মামলা রয়েছে। যেগুলোর নম্বর ৪৩ (২) ১৮ ও ৫২ (১১) ১৭।

তিনি আরও জানান, ৫-১০ বছরের শিশুদের ধর্ষণের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন এলাকায় ঘোরাফেরা করে আসছিল মহসিন। কেউ যাতে চিহ্নিত না করতে পারে তার জন্য বিশেষ পন্থা অবলম্বন করতেন তিনি। আত্মগোপনে থাকার জন্য তিনি নারায়ণগঞ্জ ও ঢাকার ডেমরা এলাকায় ভাসমানভাবে অবস্থান করে আসছিলেন। ধর্ষণ মামলা দু’টির সুরহা না হওয়ায় পুলিশ সুপারের বিশেষ নির্দেশে মামলার তদন্তভার গ্রহণ করা হয়। মহসিনকে একাধিকবার গ্রেফতার চেষ্টা করা হলেও তিনি পুলিশি ফাঁদ বুঝতে পেরে পালিয়ে যান। ৬ মাস ধরে বিশেষ অভিযান পরিচালনার পর তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এদিকে, জোরপূর্বক ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে আজ ভোর ৬টার দিকে মো. হৃদয় (৩৫) নামে আরও এক যুবককে আটক করা হয়েছে। মুন্সিগঞ্জের ডিঙ্গাভাঙ্গা এলাকায় তিনি ভাড়া বাসায় বসবাস করছিলেন। তিনি বরগুনা জেলার আমতলি থানার ত্রেপুরা গ্রামের সেলিম মৃধার ছেলে।