খেলাধুলা

রোনালদোকে নিয়ে ট্রাম্পের আগাম বার্তা!

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে নিয়ে পর্তুগাল প্রেসিডেন্টকে খোঁচা দিতে চেয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। পাশা উল্টে গেল পর্তুগিজ প্রেসিডেন্টের পাল্টা চালে। বিশ্বকাপ নিয়ে যখন গোটা বিশ্ব মাতোয়ারা, তখন রাষ্ট্রনায়করাই বা বাদ যান কেন।

ফুটবল মহারণের আস্বাদ থেকে নিজেদের আর বঞ্চিত রাখলেন না মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং পর্তুগিজ প্রেসিডেন্ট মার্সেলো রেবেলো ডে সোসা। দুই প্রেসিডেন্টের ফুটবল তর্কে অবশ্য ট্রাম্পকে হারিয়ে দিলেন সোসা।

আসলে বিশ্বকাপের মধ্যে মার্কিন সফরে রয়েছে পর্তুগিজ প্রেসিডেন্ট। বুধবার ওয়াশিংটনে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে দেখা করেন তিনি। জটিল কূটনৈতিক আলোচনার আগেই ওঠে আসে ফুটবল-প্রসঙ্গ।

যাকে কিনা মার্কিন মিডিয়া বর্ণনা করছে ‘ক্যাজুয়াল কনভারসেশন’ হিসেবে। সেই ক্যাজুয়াল কনভারসেশনের শুরুতেই প্রেসিডেন্ট সোসা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে অনুরোধ করেন বিশ্বকাপ পর্তুগালের সম্ভাবনা নিয়ে বলতে।

প্রেসিডেন্ট সোসা বলেন, শুনলাম আপনি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের সঙ্গে ফুটবল নিয়ে আলোচনা করতে চান, তাকে বলবেন পর্তুগালও বিশ্বকাপ খেলছে, আর আমরা এবার বিশ্বকাপ জেতার আশায় আছি। ভুলে যাবেন না আমাদের কাছে বিশ্বের সেরা ফুটবলারটি রয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট সোসার কথার জবাবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তাকে পাল্টা প্রশ্ন করেন। তিনি বলেন, আমিও দেখেছি পর্তুগাল খুব ভালো খেলছে। আচ্ছা, রোনালদোকে আপনার কেমন ফুটবলার বলে মনে হয়?

ট্রাম্পের প্রশ্নের উত্তর সোসা দেন এক কথায়। তিনি বলেন, রোনালদোই বিশ্বের সেরা ফুটবলার। এতে সুযোগ পেয়ে যান ট্রাম্প। রসিকতার সুরে তিনি সোসাকে বলেন, রোনালদো তো বিশ্বের সেরা ফুটবলার, তিনি যদি আপনার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপতি পদের জন্য ভোটে দাঁড়ান?

এমন প্রশ্নে প্রথমে কিছুটা অপ্রস্তুত হয়ে পড়েন পর্তুগিজ প্রেসিডেন্ট। কিছুটা সামলে নিয়ে তিনি অবশ্য মোক্ষম জবাব দেন। বলেন, আমাদের দেশটা আপনাদের মতো নয়, এখানে সবাই ভোটে জেতেন না, রোনালদোও জিতবেন না। সেটা হয়তো আপনিও জানেন।

কী ভেবে এ কথা বললেন পর্তুগিজ প্রেসিডেন্ট? তবে কী তিনি ট্রাম্পের জয়কে কটাক্ষ করলেন? সে প্রশ্নের উত্তর খুঁজছে নেটদুনিয়া।