অর্থ ও বিনিয়োগ

যে কারনে বাংলাদেশকে দুইশ কোটি টাকা অনুদান দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক !

এফপি

ডেস্কনিউজ; প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কয়েকটি প্রকল্পে বাংলাদেশকে ২৫ মিলিয়ন ডলার অর্থাৎ প্রায় ২০৯ কোটি টাকা অনুদান দেবে বিশ্বব্যাংক। এ অনুদানের অর্ধেক অর্থ ব্যয় হবে রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষা ও জীবনমান উন্নয়নে। বাকি অর্ধেক কক্সবাজার জেলার প্রাথমিক স্তরের শিক্ষা উন্নয়নে ব্যয় করা হবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা শরণার্থীদের মধ্যে শিশুদের সংখ্যাই বেশি। বর্তমানে তারা শিক্ষাসহ অন্যান্য মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত। এসব কারণে শিক্ষাসহ রোহিঙ্গাদের অনুদান দিতে চায় বিশ্বব্যাংক। কিন্তু রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিতে গিয়ে টেকনাফ-কক্সবাজারের শতাধিক প্রাথমিক বিদ্যালয় ক্ষতির শিকার হয়েছে। ওইসব অঞ্চলের বিদ্যালয় সংলগ্ন রাস্তাঘাটও নষ্ট হয়ে গেছে। এর মধ্যে কক্সবাজারের ১৩১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে কমপক্ষে ১শ ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সবদিক বিবেচনা বিশ্বব্যাংকের দেয়া ওই অনুদানের অর্থ শুধু রোহিঙ্গা শিশুদের জন্য নয়, বরং কক্সবাজারের প্রাথমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের জন্যও ব্যয় করার স্বীদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) মো. গিয়াস উদ্দিন আহমেদ জানান, ‘বিশ্বব্যাংকের এই অনুদান শিক্ষা প্রকল্পে ব্যবহার করা হবে। এতে রোহিঙ্গারা শিক্ষা সেবা পাবে পাশাপাশি বাংলাদেশের ক্ষতিগ্রস্থ বিদ্যাপীঠগুলোর সংস্কার করা হবে।

তিনি জানান, রোহিঙ্গাদের প্রভাবে কক্সবাজারের মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত ও স্থানীয় শিক্ষার্থীদের শিক্ষা জীবন ব্যাহত হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ এবং ইউনিসেফ সেখানকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন এবং শিক্ষার্থীদের জীবনমান উন্নয়নে যৌথভাবে কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে।