বিনোদন

‘মেয়েদের প্রোমোশন মানেই তো বসের সংগে’

এফপি

পরিচালক বীরসা দাসগুপ্তের‘ক্রিসক্রস’ সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে আগামী ১০ অগাস্ট। জীবনের ‘ক্রিসক্রস’-এর মধ্যে দিয়ে কীভাবে ৫ নারীকে এগিয়ে যেতে হয়, সেই গল্পই বলা হয়েছে বীরসার সিনেমায়।

প্রিয়াঙ্কা সরকার, সোহিনী সরকার, জয়া আহসান, মিমি চক্রবর্তী এবং নুসরতকে দেখা যাবে ‘ক্রিসক্রস’-এ। যেখানে কাউকে দেখা গিয়েছে সাংবাদিকের চরিত্রে অভিনয় করতে, আবার কাউকে দেখা গিয়েছে একজন ডাকাবুকো অভিনেত্রীর চরিত্রে। আবার কাউকে দেখা গিয়েছে গৃহবধূ হয়ে কীভাবে প্রতিদিনের জীবনে লড়াই করে তাকে এগিয়ে যেতে হচ্ছে। সবকিছু মিলিয়ে ‘ক্রিসক্রস’-এর লড়াকু গল্প নিয়ে ইতিমধ্যেই উচ্ছ্বসিত বাংলা সিনে দুনিয়া।

আর এবার সিনেমা মুক্তির আগে মেয়েদের জীবনের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরলেন সোহিনী, জয়া আহসান-রা। কখনও মেয়েদের চাকরি করা নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়তে হয়। আবার কখনও বলা হয়, মেয়েরা অফিসে প্রমোশন পাওয়া মানে, কিছু তো সন্দেহজনক আছেই। আবার কখনও অফিসে মেয়েদের পোশাকআশাক নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়।

অর্থ্যাৎ, ‘মেয়েরা তো শখে চাকরি করেন’, এমন মন্তব্যও করতে শোনা যায় অনেককে। কিন্তু, এবার সময় এসেছে সেই মানসিকতা পাল্টানোর। পুরুষের পাশাপাশি মহিলারাও কীভাবে কাধে কাধ মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন, সেই মনের জোরকে এবার প্রকাশ্যে তুলে আনুন। মহিলাদের হেলাফেলা না করে, চাকরিক্ষেত্রে তাদেরও সমান গুরুত্ব দিন। এবার এমনই বার্তা দিলেন জয়া এহসান।

জয়া আহসানের পাশাপাশি মেয়েদের স্বাধীনতা, পড়াশোনা নিয়ে মুখ খোলেন অভিনেত্রী সোহিনী সরকারও। অর্থ্যাৎ, মেয়ে পিএইচডি করছে তাতে কী হয়েছে, বিয়ে দিয়ে দিন। কিংবা পাত্র বিদেশে থাকে, পণ চাইলে, তা দিয়েই বিয়ের পিঁড়িতে বসিয়ে দিন। কিংবা, এখনকার মেয়েরা যেভাবে লেট নাইট পার্টি করে, ছোটছোট পোশাক পরে, তা দেখা যায় না, গোছের মন্তব্য করা থেকে বা শোনা থেকে বেরিয়ে আসুন। এখন মহিলাকে প্রথম মানুষ হিসেবে গন্য করুন। তারপর তার সঙ্গে কথা বলুন। কিংবা, তার সম্পর্কে কথা বলুন বলে বার্তা দিয়েছেন সোহিনী সরকার।

মহিলারা কীভাবে সমাজের সমস্ত বাধা বিপত্তিকে পিছনে ঠেলে দিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে, ‘ক্রিসক্রস’ এবার সেই গল্পই বলবে একেবারে অন্যরকমভাবে। আর তার আগেই সিনেমার নায়িকারা সরব হলেন মেয়েদের স্বাধীনতা নিয়ে। সূত্র: জি-নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here