লাইফস্টাইল

মেয়েদের গোপনাঙ্গে কি করলে তারা চরম মজা পাবে? দেখুন ভিডিওতে

জরায়ু থেকে স্ত্রীদেহের বাইরের অংশ পর্যন্ত বিস্তৃত একটি ফাইব্রোমাসকুলার নলাকার অংশ। মানুষ ছাড়াও অমরাবিশিষ্ট মেরুদণ্ডী ও মারসুপিয়াল প্রাণীতে, যেমনঃ ক্যাঙ্গারু অথবা স্ত্রী পাখি, মনোট্রিম ও কিছু সরীসৃপের ক্লোকাতে যোনি পরিদৃষ্ট হয়। স্ত্রী কীটপ্রত্যঙ্গ এবং অন্যান্য অমেরুদণ্ডী প্রাণীরও যোনি আছে, যা মূলতঃ ওভিডাক্টের শেষ প্রান্ত। লাতিন বহুবচনে যোনিকে বলা হয়  উয়াগিনাই (ইংরেজি উচ্চারণে ভ্যা’জাইনি)

মেয়েদের যো’নীর প্রতিটি অংশই বেশ সংবেদনশীল। তাই যেখানেই স্পর্শ করুন না কেন তাতেই মেয়েদের আনন্দ হবে।

তবে বিশেষভাবে সংবেদনশীল অংশ হল ক্লিটোরিস। ক্লিটোরিস মেয়েদের যৌ’নাঙ্গের উপরের দিকে যেখানে যোনির ঠোট বা পাপড়ি (ক্ষুদ্রোষ্ঠ) দুটি মিলিত হয় সেখানে অবস্থিত। এটি ঘোমটার মত একটু ত্বক দ্বারা আবৃত থাকে। ক্লিটোরিসে হালকা ভাবে আদর করলে মেয়েদের চরম আনন্দ হয় এবং দ্রুত অর্গ্যাজম হতে পারে।

এছাড়াও যোনির ভেতরে সামনের দেওয়ালে G-spot বলে একটি স্থান থাকে। যো’নির মধ্যে আঙুল প্রবেশ করিয়ে যোনির সামনের দেওয়ালে ওই বিশেষ স্থানটি খুঁজে বের করে সেখানে আলতো করে আঙুল দিয়ে আদর করলেও মেয়েদের বেশ আনন্দ হয়। যৌ’নাঙ্গে (বৃহদোষ্ঠ, ক্ষুদ্রোষ্ঠ, ক্লিটোরিস)

জিহ্বা দিয়ে চাটলে বা হালকা করে কামড়ে দিলেও অনেক মেয়েদের আনন্দ হয়। তবে মনে রাখবেন যৌ’ন আনন্দের রকম এবং মাত্রা একেকজনের ক্ষেত্রে একেক রকম। তাই ঠিক কি করলে আপনার সঙ্গিনীর সবথেকে বেশি ভাল লাগবে সেটা আপনাকেই খুঁজে বের করতে হবে। নিজের কল্পনাশক্তি ব্যবহার করুন। তবে কখনোই একবারে বেশি শক্তি প্রয়োগ করবেন না। ধীরে ধীরে হালকা চাপ দিয়ে শুরু করুন। ক্লিটোরিস সম্মন্ধে বিশদে জানতে নিচের লিঙ্কে ক্লিক করে সেখানে দেওয়া আলোচনা পড়তে পারেন।

নিচের লিঙ্কে ক্লিক করুন