লাইফস্টাইল

মহিলার প্রেমের ফাঁদে পড়ে যুবকের মর্মান্তিক পরিণতি !

প্রথমে প্রেমের ফাঁদ পাতা। তারপর ব্ল্যাকমেল করে খুনের অভিযোগ উঠল হাওড়ার জগাছায়। নিহতের নাম তুষার ঘোষ। ঘটনার তদন্তে নেমে মোট চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরমধ্যে রয়েছে এক যুবতীও।

গত ৬ মে’র ঘটনা। দুপুর সাড়ে ৩টে নাগাদ হাওড়ার জগাছা থানা এলাকার আদিবাসী ক্লাবের কাছে প্রেস কোয়ার্টার ঝিল থেকে উদ্ধার হয় এক অজ্ঞাতপরিচয় যুবকের মৃতদেহ।

পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে। শুরু হয় পরিচয় জানতে খোঁজ। এরপরই ৭ মে পুলিশের কাছে উঠে আসে নতুন তথ্য। জানা যায় মৃতের নাম তুষার ঘোষ (২৯)। তিনি জগাছার বাসিন্দা।

এই ঘটনার পর রবিবার সকালে তুষারের বাবা তারক ঘোষ জগাছা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। সেখানে তিনি বলেন, শুভম অধিকারী নামে এক যুবকের ফোন আসার পরই বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় তুষার। এরপর সে আর বাড়ি ফেরেনি। বহু খোঁজ করেও সন্ধান মেলেনি তাঁর।

পুলিশ নিহত তুষারের বাবার দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানতে পারে সোশাল নেটওয়ার্ক মারফত্‍ এক মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক হয় তাঁর। পাশাপাশি জানা যায়, তুষারের গায়ে সোনার যেসব গয়না ছিল সেগুলিও অমিল। আংটি, সোনার চেন-মৃতদেহের সঙ্গে ছিল না। এতেই পুলিশের সন্দেহ আরও দৃঢ় হয়।

পুলিশ বুঝেই গিয়েছিল, এটা আর যাই হোক আত্মহত্যা হতে পারে না। এরপরই পুলিশ নিহত তুষারের মোবাইল ফোন নিজেদের হেফাজতে নেয়। শুরু হয় কললিস্ট চেক। সেখানেই পাঁচজনের নাম উঠে আসে। দু’একদিন সন্দেহভাজনদের গতিবিধির উপর নজর রাখে জগাছা থানার পুলিশ।

রবিবারই তুলে আনা হয় পাঁচজনকে। আটক পাঁচজনকে জিজ্ঞাসাবাদ চালায় পুলিশ। সেই জেরায় বহু সূত্রই পুলিশের হাতে উঠে আসে। আটকদের দীর্ঘক্ষণ দফায় দফায় জেরা করে পুলিশ। এরপরই কৃতকর্মের কথা স্বীকার করে তারা। এই ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। একজনকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

ধৃতদের নাম প্রেম সাউ (২০), সৌগত মাকাল (১৮), শুভম অধিকারী (২১), রিয়া ভট্টাচার্য (১৮)। চারজনকেই সোমবার হাওড়া আদালতে তোলা হয়। প্রেম সাউ, সৌগত মাকাল ও শুভম অধিকারীকে ১০ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেয় আদালত। বিচারক রিয়া ভট্টাচার্যকে জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন। পুলিশ জানিয়েছে, পরিকল্পনা করেই প্রেমের ফাঁদে ফাঁসানো হয় তুষারকে। তাতে তুষার ফেঁসে গেলে শুরু হয় ব্ল্যাকমেল করা। কিন্তু তাতে লাভ না হওয়ায় ছক কষে খুন করা হয় বলে অভিযোগ। সবদিক খোলা রেখেই তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।