খেলাধুলা

বিশ্বকাপের দুঃখ ভুলতে যা করছেন নেইমার

বিশ্বকাপের দুঃখ ভুলতে- রাশিয়া বিশ্বকাপে হেক্সা মিশন কমপ্লিট করতে পারেনি ব্রাজিল। নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি সুপারস্টার নেইমার। অপ্রয়োজনীয় ‘ডাইভ’ দিয়ে ট্রলিংয়ের শিকার হয়েছেন। এজন্য স্বাভাবিকভাবেই তার মন খারাপ। তাই আপাতত আরও কিছুদিন ফুটবলের বাইরে আছেন নেইমার। সময় কাটাতে সাও পাওলোয় নিজেকে ব্যস্ত রাখছেন পোকার খেলায়।

রাশিয়ায় এমনিতে ভালোই খেলেছিলেন ব্রাজিলীয় মহাতারকা। কিন্তু খেলার চেয়ে বেশি আলোচনা হয়েছে তার ‘নাটকীয় ডাইভ’ নিয়ে। নেইমার অবশ্য এই ধরনের বিদ্রুপকে গুরুত্ব দেননি। তিনি বলেছেন, ‘রাশিয়ায় ফুটবল খেলতে গিয়েছিলেন, প্রতিপক্ষে ফুটবলারদের লাথি খেতে নয়।’

তিনি আরও বলেছিলেন, কোয়ার্টার ফাইনালে বেলজিয়ামের কাছে হেরে প্রতিযোগিতা থেকে বিদায় নিয়ে এতটাই ভেঙে পড়েন যে ফুটবলের দিকে তাকাতেও তার ইচ্ছে করত না। এমনকি বিশ্বকাপের বাকি ম্যাচ দেখারও তার আর কোনও আগ্রহ ছিল না। হয়তো তাই এখন তার পোকার নিয়ে মেতে থাকা।

বিশ্বের সব চেয়ে দামি ফুটবলার এখন সাও পাওলোতে পোকার সিরিজ খেলতে নেমেছেন ২৮৮ জনের সঙ্গে। শুধু খেলছেন না, ৯ জনকে নিয়ে এই সিরিজের যে ফাইনাল হবে, সেখানেও উঠেছেন ষষ্ঠ স্থান পেয়ে। এ দিকে, নেইমারের ঘনিষ্ঠ মহল জানাচ্ছে, এই সিরিজ খেলেই তিনি প্যারিসে চলে যাবেন। যোগ দেবেন পিএজির অনুশীলনে। যে ক্লাবের হয়ে খেলতে গিয়েই গত মৌসুমে তার পায়ে মারাত্মক চোট লাগে এবং অস্ত্রোপচার করতে হয়।

এদিকে, নেইমারের রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেওয়া নিয়ে জল্পনা থামছে না। এমনিতেই যে পদ্ধতিতে তিনি বার্সেলোনা ছেড়ে প্যারিসের ক্লাবে যোগ দেন, তা নিয়ে বিস্তর সমালোচনা হয়েছে। এখন শোনা যাচ্ছে এবার তার রিয়ালে যোগ দেওয়াটা নিছক সময়ের অপেক্ষা। সেটা বেশি করে শোনা যাচ্ছে, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো রিয়াল ছেড়ে জুভেন্তাসে যোগ দেওয়ায়।

নেইমার অবশ্য আবার বললেন, ‘এ সবই সংবাদমাধ্যমের বানানো গল্প। আমার সঙ্গে পিএসজির চুক্তি রয়েছে। তাকে অসম্মান করতে পারি না। তাছাড়া নতুন চ্যালেঞ্জ নেব বলেই প্যারিসে খেলব ঠিক করেছি। আমার লক্ষ্য আরও বড় কিছু করে দেখানো। আর সেটা পিএসজিতে খেলেই। রাতারাতি মত পাল্টে ফেলার মতো পাগল আমি নই। নতুন মৌসুমে আমাকে অনেক কিছু করে দেখাতে হবে।’