ক্রিকেট

বিশ্বকাপের চেয়ে বিয়ের চিন্তাই বেশী মুমিনুল হকের !

এফপি

ডেস্কনিউজ; ‘২০১৯ বিশ্বকাপ’ স্কোয়াডে সুযোগ পাবেন কি পাবেন না সেই ভাবনায় অনেকেই রুদ্ধশ্বাস সময় পার করছেন। তবে এ নিয়ে কোন টেনশন নেই মুমিনুল হকের।

আসছে ১৮ এপ্রিল বিশ্বকাপের চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা করার কথা রয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি)। তবে বাংলাদেশের টেস্ট স্পেশালিস্ট খ্যাত এই ব্যাটসম্যান ভালো করেই জানেন আসন্ন ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলে তার জায়গা হবে না। তাই আপাতত তার ভাবনা জুড়ে রয়েছে নিজের বিয়ে নিয়ে। শিগগিরই জীবনের নতুন ইনিংস শুরু করতে যাচ্ছেন মুমিনুল। বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন ১৯ এপ্রিল।

ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ খেলা মুমিনুলের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ, সামনেই বিশ্বকাপ। খুব বেশিদিন বাকি নেই। অবশ্য প্রতিটি ক্রিকেটারের স্বপ্ন থাকে দেশের হয়ে ক্রিকেটের সব বড় আসরে খেলার। কিন্তু আমি কিছুটা হলেও জানি যে আমার সুযোগ হয়তো নেই। তাই এ নিয়ে ভেবে নিজের ওপর কোনো ধরনের চাপ নিতে চাচ্ছি না। আমি একজন প্রফেশনাল ক্রিকেটার। আমার জন্য খেলা দরকার, খেলছি ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে। নিজের ব্যাটিংয়ের ভুল-ত্রুটিগুলো শুধরে নেয়ার চেষ্টাও করছি। আর জানেনই তো ১৯ তারিখ বিয়ে করছি। সেটি নিয়ে ব্যস্ত আছি খুব।’

এদিকে বিয়ের তারিখটাও গণমাধ্যমকে বলে দিয়েছেন মুমিনুল। আগামী ১৯ এপ্রিল মুমিনুল হকের বিয়ে। কনের নাম ফারিহা বাশার। থাকেন মিরপুর ডিওএইচএসে। ফারিহা বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী। ৪ বছর প্রেম করে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে যাচ্ছেন মুমিনুল। বলা যায় প্রেমের সফল পরিণতি।

কিন্তু বিয়ে তার ক্রিকেট জীবনে প্রভাব ফেলবে না বলেই মনে করেন এ তারকা ক্রিকেটার। সেই সঙ্গে আস্থা তার ক্রিকেট জীবনে আরো বড় অনুপ্রেরণাই হবে হবু স্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি না বিয়ে করলে আমার জীবনে অনেক বড় কিছু বদলে যাবে বা আমার ক্রিকেট জীবনে প্রভাব পড়বে। হ্যাঁ, এটি সত্যি যে, একজন সাপোর্ট করার মতো জীবনসঙ্গী পাবো। বিয়ের আগে যেমন ত্যাগ স্বীকার করেছি আমার ক্রিকেট খেলার জন্য। বিয়ের পর বউয়ের সেই দায়িত্ব আরো বেড়ে যাবে। আশা করি আরো বেশি অনুপ্রেরণা হয়ে আসবে সে আমার জীবনে।’