সারাদেশ

পাবনায় প্রেম করে শারীরিক সম্পর্ক…অতপর বিয়ের দাবিতে ছাত্রী’র অনশন

পাবনা প্রতিনিধি:পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার অষ্টমনিষা ইউনিয়নের নূর-নগরগ্রামে শাকিল হোসেন (২৪) এর বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অনশন করছে এক কলেজ ছাত্রী।

ঘটনার পর প্রেমিক শাকিল পলাতক রয়েছে। শাকিল ঐ গ্রামের মৃত সাদেক পুলিশের ছেলে। প্রেমিকা রওশনা খাতুন পাশ্ববর্তী চাটমোহর উপজেলার সেনগ্রামের গুড় ব্যবসায়ি আইয়ুবের মেয়ে সে এডওয়ার্ড কলেজের (অনার্স) তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী।

জানা যায়,গত চার বছর পূর্বে শাকিলের সাথে রওশনা’র প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

দেখাও হয় তাদের একাধিকবার। সপ্তাহখানেক আগে শাকিল তার প্রেমিকা রওশনা কে বিয়ে করবে বলে জানায় এবং রওশানাকে তার বাড়ি থেকে দশ লক্ষ টাকা দিলে তাকে বিয়ে করবেন বলে আশ্বাস দেন শাকিল।

এই আশ্বাসেই কিছু টাকা নিয়ে শনিবার দুপুরে প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে হাজির হয় রওশনা। কিন্তু তাকে মেনে নিতে আপত্তি জানান প্রেমিকের বাবা-মা। অবস্থা বেগতিক দেখে প্রেমিক শাকিল বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়।

প্রেমিকা রওশনা জানান,শাকিল আমাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক করেছে। আমি টাকা দিতে অস্বীকার করলে সে আমার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। শাকিল আমাকে বিয়ে না করলে আমি আত্মহত্যা করব।

শাকিলের বড় ভাই মিঠুন বলেন,শাকিল বিয়ে করবে না তাই আমরা মেয়েটিকে বুঝিয়ে বাসায় পাঠানোর চেষ্টা করছি। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ৯ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুস সোবাহান জানান,আমি উভয় পরিবারের সাথে কথা বলে বিষয়টি মীমাংসা করার চেষ্টা করছি।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ভাঙ্গুড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মাসুদ রানা বলেন,এখনও কেউ অভিযোগ দেয়নি। তবে ঘটনা স্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল।