লাইফস্টাইল

নারীর অনিয়ন্ত্রিত প্রস্রাব বেরিয়ে যাওয়া

অনিয়ন্ত্রিত প্রসাব কোন কোন নারীর ক্ষেত্রে খুবই সাধারন সমস্যা আবার অনেকের কাছে এটি সাধারন সমস্যা নয়।বরং এটি সমস্যা ঘটাতে থাকে আরও বড় ধরনের । অনিয়ন্ত্রিত প্রসাব হওয়ার কারনে বার বার কাপড় নোংরা হয়। অনেক কাজে বিঘ্ন হয়। হাঁসি বা কাশির সময় ও এ ঘটনা ঘটাত পারে।টয়লেটে যাওয়ার আগে যদি প্রসাব হয়ে যায় তবে তা অনেক বিড়ম্বনার কারন।

কী কারনে এ সমস্যা হতে পারে:
(০১)অনিয়ন্ত্রিত প্রসব এর কারনে হতে পারে বা প্রসবে ফরসেপ ব্যাবহারে হতে পারে।
(০২)সর্দি কাশির ঔষধ মাত্রাতিরিক্ত গ্রহন করলে এ সমস্যা হতে পারে।
(০৩)মানষিক রোগের কারনে হতে পারে।
(০৪)অতিরিক্ত মদ বা নেশাার কারনে হতে পারে।

এ সমস্যায় কি ব্যাবস্থ্ গ্রহন করা উচিৎ:
(০১)এর সমস্যার চিকিৎসা নির্র করে প্রসাবের মাত্রা ও বেগের উপর।
(০২)প্রথম দিকে স্বাভাবিক ভাবেই ঔষধ দেওয়া হয়।
(০৩)নিয়মিত ব্যাায়াম ও ওজন নিয়ন্ত্রনের উপর বিষেশ নজর দেওয়া হয়।কারন গবেষনায় দেখা গেছে যে ওজন নিয়ন্ত্রন করতে পারলে এ সমস্যা ৫০ ভাগ কম হয়।
(০৪)প্রসাবের মাত্রা বেড়ে যায় এমন খাবার ত্যাগ করতে হবে।
(০৫) এরপর যদি াজ না হয় তবে কি ছু ব্যায়াম শিখানো হয় যাতে জরায়ু এর পেশিগুলো সচল হয় ।
(০৬) এ ব্যায়ামেই ৬০ থেকে ৭০ ভাগ উন্নতি হয়।
(০৭) বর্মানে উন্নত বিশ্বে একধরনের সিনথেটিক টেপ ব্যাবহার করা হয় যার সাহায্যে যোনিপথকে সাহয্য করা হয়।