অন্যরকম

নতুন জুতায় পায়ে ফোসকা পড়লে যা করবেন

অফিসে বা বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিতে যাওয়ার সময় নতুন একজোড়া জুতায় পড়লে কার না ভালো লাগে? কিন্তু সব ভালোরই একটা খারাপ দিকও যে থাকে, সেটা ভুক্তভোগী মাত্রেই জানেন৷ নতুন জুতা পরার খানিকক্ষণের মধ্যেই পায়ে অস্বস্তিকর খচখচানি, বেলা গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে সেটা বেড়ে ব্যথায় পরিণত হওয়া আর দিনের শেষে বেশ বড়োসড়ো একখানি ফোসকার মুখোমুখি কম-বেশি আমরা সবাই-ই হয়েছি কখনও না কখনও৷ কিন্তু আগামীদিনে যাতে আর তা না হয়, সেই চেষ্টাটা করতে হবে তো! তাই হাতের কাছে রাখুন কিছু কার্যকর ঘরোয়া উপাদান৷

নারকেল তেল: নারকেল তেল ত্বক ময়েশ্চরাইজ় করে এবং জ্বালাভাব কমাতেও তা দারুণ কার্যকর৷ নতুন জুতোয় যদি আপনি খানিকটা নারকেল তেল লাগিয়ে রাখেন পরার আগের রাতে, তা হলে জুতোর চামড়াও নরম হয়ে যাবে৷ যাঁদের বাড়ির আশেপাশে কোথাও নারকেলগাছ আছে, তাঁরা পারলে একটি সবুজ নারকেলপাতা জোগাড় করুন, পুরোটা চাই না, দু’-একটা সবুজ স্ট্রিপ হলেই হবে৷ কাঁচা পাতাটা পুড়িয়ে নিন গ্যাসে৷ এবার ছাইটা গুঁড়ো করে নারকেল তেলের সঙ্গে মিশিয়ে একটা পরিষ্কার কৌটোয় ভরে ফ্রিজে রেখে দিন৷ এই মিশ্রণ লাগালে নাকি পায়ে কড়াও পড়ে না, ফোসকাও পড়ে না!

মধু: মধুতে জ্বালাভাব কমে, তাড়াতাড়ি ক্ষত সারে, দাগও মিলিয়ে যায় দ্রুত৷ মধুর সঙ্গে তিলের তেল মিশিয়েও লাগাতে পারেন ফোসকার উপর৷ শুকিয়ে গেলে ধুয়ে নেবেন ঘরের তাপমাত্রায় থাকা জলে৷ তবে ত্বক খুব স্পর্শকাতর হলে মধুতে রিঅ্যাকশন হতে পারে, তাই সতর্ক থাকবেন৷

চালের গুঁড়ো: ফোসকা শুকিয়ে যাওয়ার পরও অনেকদিন দাগ থেকে যায়, তার মূল কারণ মৃত কোষ৷ যথাযথ এক্সফোলিয়েশন হলে ফোসকা সারেও তাড়াতাড়ি, দাগও মিলিয়ে যায়৷ চালের গুঁড়ো আর জল গুলে মোটা মিশ্রণ বানিয়ে নিন৷ ফোসকা যেখানে পড়েছে সেখানে লাগিয়ে শুকোতে দিন৷ তার পর জলে ধুয়ে নিতে হবে৷ পা মুছে ভালো করে ময়েশ্চরাইজ়ার লাগাতে ভুলবেন না৷

অ্যালো ভেরা: ফোসকা পড়ার পর যে জ্বালা ও ব্যথাভাব থাকে, সেটা কমাতে দারুণ কার্যকর হয়ে উঠতে পারে অ্যালো ভেরা জেল৷ অনেক সময় ফোসকা ফেটেও যায়, সেক্ষেত্রেও অ্যালো ভেরার অ্যান্টি মাইক্রোবায়াল প্রপার্টি কাজে আসবে৷ সরাসরি পাতার নির্যাস লাগাতে পারেন, বাজারচলতি অ্যালো ভেরা জেল ব্যবহার করলেও ভালোই ফল পাবেন৷

পেট্রোলিয়াম জেলি: নতুন জুতো পরার আগের দিন সারা রাত তার ভিতরে পেট্রোলিয়াম জেলি লাগিয়ে রাখুন৷ জুতো নরম হয়ে যাবে, ফোসকা পড়ার আশঙ্কাও কমবে৷ আর যদি একান্ত পড়েই যায়, তা হলেও নিয়মিত পেট্রোলিয়াম জেলি লাগাতে থাকুন, পায়ের ত্বক আর্দ্র থাকলে ফোসকা সারবে তাড়াতাড়ি৷