অন্যরকম

দুই হাতের হৃদয়রেখা মিলে গেলে কি হয়?

কৌতুহল নিয়ে অনেকেই জ্যোতিষ শাস্ত্র নিয়ে চর্চা করে থাকেন। অথবা অতীত-বর্তমান-ভবিষ্যৎ নিয়ে চর্চায় বিশ্বাস করেন। বিশ্বাস করেন হাতের রেখায় নির্ভরশীল ভাগ্যকে। তর্ক-বিতর্কে ঘেরা মানুষের হাতের রেখা নিয়ে প্রচলিত রয়েছে নানা কথা।

তেমনই একটি হলো- দুই হাতের হৃদয়রেখার মিলন নিয়ে একটি বিষয়। হাতের তালুতে যে তিনটি প্রধান রেখা থাকে, তাদের মধ্যে আঙুলের দিক থেকে প্রথম এবং প্রধানতম স্পষ্ট রেখাটিকেই বলে হৃদয়রেখা। মনে করা হয়, দু’টি হাতের তালু পাশাপাশি মেলালে দুই তালুর হৃদয়রেখা জুড়ে গিয়ে কী ধরনের আকৃতি তৈরি হচ্ছে, তার উপরই নির্ভর করে আপনার দাম্পত্য জীবন কেমন হতে পারে।

প্রথমত, দুই হাতের তালু পাশাপাশি রাখলে হৃদয়রেখা দু’টি জুড়ে গিয়ে যদি একটি সরলরেখা তৈরি হয়, তাহলে মনে করা হয় : এই ব্যক্তিরা শান্ত-শিষ্ট হন। এরা অশান্তি সৃষ্টিকারী মানুষদের থেকে দূরে থাকতে পছন্দ করেন। এইসব ব্যক্তিদের সম্বন্ধ করে বিয়ে হওয়ার সম্ভাবনা খুবই বেশি থাকে।

দ্বিতীয়ত, দুই হাতের তালু পাশাপাশি রাখলে দুই হৃদয়রেখা যদি কোনোভাবেই সংযুক্ত না হয়, তাহলে মনে করা হয়, এরা নিজের বয়সের তুলনায় বেশি বুদ্ধিমান এবং পরিণত। অন্যেরা কি ভাবছে, তা নিয়ে এরা চিন্তিত নন। বয়সে বড় মানুষের সঙ্গে এদের বিয়ে হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে বলে মনে করা হয়।

তৃতীয়ত, দুই হাতের তালু পাশাপাশি রাখলে দু’টি হৃদয়রেখা মিলে যদি অর্ধচন্দ্রের মতো একটি আকৃতি তৈরি করে, তাহলে মনে করা হয়, এদের মনের জোর অত্যন্ত বেশি। এরা অন্তর থেকে ভালোবাসেন। সাধারণত, দীর্ঘদিনের পরিচিত কোনো মানুষকেই জীবনসঙ্গী হিসেবে এরা বেছে নেন।

তথ্যসূত্র: বিডি প্রতিদিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here