লাইফস্টাইল

তোমাকে সিনেমার নায়িকা হতে হলে আরও তরতাজা, মোটাসোটা হতে হবে

হালে চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি তার এক সাক্ষাৎকারে প্রকাশ করেছেন নায়িকা হওয়ার নেপথ্যের গল্প। জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী বলেন, সিনেমার নায়িকা হওয়ার বাসনায় তিনি যেদিন প্রথম প্রযোজকের কক্ষে হাজির হন, সেদিন খুব বেশি সময় দেননি প্রযোজক। তুমি তো পুষ্টিহীন, তোমাকে সিনেমার নায়িকা হতে হলে আরও তরতাজা, মোটাসোটা হতে হবে বলে ইন্টারভিউ শেষ করে দেন তিনি।

মাহি তারপর টানা এক মাস সারা দিনে ৪-৫ বার ভাত খেয়েছেন, এক ডজন ডিম খেয়েছেন, বাসার দুধের বিল বাড়িয়েছেন। কিন্তু কিছুতেই কিছু হচ্ছিল না। ওজন তেমন একটা বাড়েনি, নাদুসনুদুস হওয়া তো দূরের কথা। এদিকে মাস পেরিয়ে যাচ্ছে। মাহি তার বান্ধবীকে নিয়ে চলে গেলেন নিউমার্কেটে। মোটা কাপড় কিনে দর্জিকে মোটা করে সেলাইয়ের অর্ডার দিলেন। সেটা পরেই চলে গেলেন প্রযোজকের কাছে। এবার রাজি প্রযোজক, তার ভাষায়- কিছুটা উন্নতি হয়েছে, আরও হতে হবে। ঠিক আছে তোমাকে নায়িকা নির্বাচন করলাম।

গত প্রায় দেড় যুগ ধরে সিনেমাভিনয়ের সঙ্গে যুক্ত পপি। তার উচ্চতা আর শারীরিক গড়ন নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই। সবাই জানতেন প্রযোজকের ভাষায় নায়িকাদের যে হৃষ্টপুষ্ট গড়ন দরকার তার শতভাগই এই নায়িকা ধারণ করেন। কিন্তু হঠাৎ করেই পপির কি ভীমরতি হলো নিজেকে শুকিয়ে একেবারে ডায়াবেটিকসের রুগীর গড়ন তৈরি করলেন। আর সেটা করতে গিয়ে পপি নাকি মোট ২১ কেজি ওজন কমিয়েছেন তিন মাসে। ভাত খাওয়া তো দূরের কথা, রুটি পর্যন্ত খাননি। শরীরকে মেদশূন্য করতে বিশেষ ধরনের ধূমপানও নাকি মাঝে মাঝে করেছেন বলে নিন্দুকরা বলাবলি করে। এই তো কয়েক মাস আগে ঢাকার বাইরে একটি অনুষ্ঠানে গিয়ে পপি রীতিমতো দর্শকের ধাওয়া খেয়ে পালিয়েছেন।

কারণ, পপির পরিচিত সেই গড়ন না থাকায় সাধারণরা মনে করেছেন আয়োজকরা পপির নামে অন্য কাউকে স্টেজে তুলেছেন।
মাহি তো নিজেকে বদলে নিয়ে অনেক সিনেমায় অভিনয় করেছেন, কিন্তু পপি নিজেকে বদলে নিয়ে এখন সিনেমাশূন্য হয়ে পড়ছেন। আগে তবুও কিছু কিছু সিনেমায় ডাক পড়ত আর এখন তো….। আফসোস-মাহি কী বললেন, আর পপি কী করলেন। সিনেমার নবাগতরা এবার নিশ্চয়ই ভেবেচিন্তে নিজেকে বদলের রাস্তায় হাঁটবেন।