খেলাধুলা

চ্যাম্পিয়ন নেইমার ঘুরে দাঁড়াবে

জিততে গিয়েছিলেন বিশ্বকাপ। ফিরেছেন খালি হাতে। বেলজিয়ামের কাছে ১-২ গোলে হেরে বিদায় নেইমারের ব্রাজিলের। এর পর থেকেই সমালোচিত নেইমার। প্রয়োজনের সময় জ্বলে উঠতে পারেননি বলে একহাত নিয়েছেন অনেকে। খোদ নেইমারও ভেঙে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেছিলেন, ‘ফুটবলের দিকে তাকাতে পর্যন্ত পারছি না। আমার ক্যারিয়ারে সবচেয়ে খারাপ মুহূর্ত।’

সেই খারাপ সময় নিয়ে পড়ে থাকলে চলবে না। পিএসজি কোচ টমাস টাসেলের অধীনে নতুন করে শুরুর অপেক্ষায় পিএসজি। তাতে সেরা বাজি অবশ্যই রেকর্ড ২২২ মিলিয়ন ইউরোয় প্যারিসে আসা নেইমার। গুঞ্জন ছিল বিশ্বকাপ শেষে নেইমার পাড়ি জমাচ্ছেন রিয়াল মাদ্রিদে। নেইমার বাতিল করেছেন সেই সম্ভাবনা। তাঁকে নিয়ে তাই পরিকল্পনা সাজাচ্ছেন টাসেল। নেইমারকে উদ্বুদ্ধ করলেন ‘চ্যাম্পিয়ন’ বলে, ‘নেইমার অনেক বড় খেলোয়াড়। ও জানে কিভাবে জয় উদ্‌যাপন করতে হয় আবার কিভাবে কাটাতে হয় হারের হতাশা। খেলায় আপনাকে ঘুরে দাঁড়ানোর চ্যালেঞ্জ জিততে হবে। নেইমারও ঘুরে দাঁড়াবে, ও চ্যাম্পিয়ন।’

খারাপ সময়টা পেছনে ফেলার দায়িত্ব নেইমারেরই। তবে কোচ হিসেবে তাঁকে সাহায্য করতে চান টাসেল, ‘আমার মনে হয় না আলাদা করে অনুপ্রাণিত করতে হবে নেইমারকে। এর পরও আমরা সাহায্য করব ওকে। দলে সবাই একে অন্যকে সাহায্য করবে যেন বিশ্বকাপের পরে নিজেদের নতুন লক্ষ্যে ভালোভাবে শুরু করতে পারে। আমরা জানি অবশ্যই ব্রাজিল আরো অনেক বেশি আশা করেছিল। এত তাড়াতাড়ি বিদায়ের পর একটা ধাক্কা লাগবেই। সাহায্যের কথাটা আসছে এ জন্য।’

গত মৌসুমে ঘরোয়া সব শিরোপা জিতেছে পিএসজি। চ্যালেঞ্জ ছিল চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার। সেখানে রিয়াল মাদ্রিদের কাছে হেরে বিদায়। মৌসুমের মাঝপথে পেনাল্টি নিয়ে দ্বন্দ্বে জড়িয়েছিলেন নেইমার, কাভানি। বিশ্বকাপের সময় আবার গুঞ্জন ছড়িয়েছে নেইমারের সঙ্গে শীতল সম্পর্ক কিলিয়ান এমবাপ্পের! এসব নিয়ে মোটেও মাথা ঘামাচ্ছেন না টাসেল। বরং বড় নামের খেলোয়াড়দের সামলানো সহজ বলে জানালেন তিনি, ‘আমার অভিজ্ঞতা থেকে বলতে পারি বড় নামের খেলোয়াড়রা খুবই সাধারণ হয় কারণ তারা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চায় আর জিততে চায়। অবশ্যই আমাদের খুব বড় ব্যক্তিত্বের খেলোয়াড় আছে আর এ নিয়ে উদ্বিগ্ন নই। আমি চাই এই দলের সবাই পিএসজিতে খেলা আর কঠোর পরিশ্রম করাটা উপভোগ করুক।’ এএফপি