অন্যরকম

গরিলারা মানুষের মতোই শোক পালন করে !

এফপি

ডেস্কনিউজ; গরিলারা মৃতদের নিয়ে কেবল শোক পালনই নয়, অন্ত্যেষ্টিক্রিয়াও সম্পন্ন করে । কোনো গরিলা মারা গেলে নিজ দলের অন্যান্য গরিলারা শোক পালন করে। আর মৃতদেহের প্রতি গরিলাদের আচরণ প্রায় একই ধরনের হয়ে থাকে।

তবে তাদের বিদঘুটে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া বিজ্ঞানীদের শঙ্কিত করে তুলেছে। মৃত গরিলার দেহ স্পর্শ করা এবং চেটে দেয়ার মতো আচরণে ইবোলার মতো মারাত্মক রোগ ছড়াতে পারে। মৃতদের যত্ন বা সম্মান প্রদর্শন একমাত্র মানুষের মধ্যেই দেখা যায়।

কিন্তু একদল গরিলার এমন আচরণ দেখতে পেলেন। দলের তিন সদস্যের মৃত্যুর পর তারা মৃতদেহ ঘিরে শোক পালন করে।
রুয়ান্ডার ভলকানোস ন্যাশনাল পার্কে ধারণকৃত একটি ফুটেজে দেখা গেছে, এক তরুণ বয়সী পাহাড়ি গরিলা তার মায়ের মৃতদেহ স্পর্শ করছে এবং আলতোভাবে মায়ের গায়ে হাত বুলিয়ে দিচ্ছে।

রুয়ান্ডা এবং ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গোর গবেষক দলটি ওই গরিলাদের আচরণ ভিডিও করেন। ৩৫ বছর বয়সী নেতৃত্বস্থানীয় পুরুষ গরিলা টিটুস এবং ৩৮ বছর বয়সী নারী গরিলা টাক বাস করতো ভলকানোস ন্যাশনাল পার্কে। এদের মৃতদেহ ঘিরে শোক পালন করে অন্য গরিলারা।

কঙ্গোর কাহুজি-বিয়েগা ন্যাশনাল পার্কে আরেক দল গরিলার একই ধরনের আচরণ দেখেছেন বিজ্ঞানীদের দল। একটি মৃত পুরুষ গরিলাকে ঘিরে একই ঘটনা ঘটেছে।

কিন্তু গরিলাদের এ আচরণ ঝুঁকিপূর্ণ। এমনিতেই মৃতদেহে মারাত্মক জীবাণু থাকতে পারে। অন্যগুলোর মধ্যে রোগ-জীবাণু মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা থেকেই যায়। এমনিতেই ইবোলার আক্রমণে হাজার হাজার গরিলার মৃত্যু ঘটেছে।