বিনোদন

কোন বলিউড নাইকাকে বিয়া করছেন হার্দিক পাণ্ডিয়া ?

এফপি

ডেস্কনিউজ; ভারতের তারকা ক্রিকেটার হার্দিক পাণ্ডিয়া ও বলিউড অভিনেত্রী এশা গুপ্তার চুটিয়ে প্রেম করার গল্প বেশ কয়েক মাস ধরেই বাতাসে উড়ছে। চুপি চুপি ডেট করছেন, লাঞ্চ-ডিনার করছেন, গোপনে এদিক-ওদিক যাচ্ছেন; এসব হরহামেশাই রটছে। যা রটে তার কিছুটা তো বটেই।

তবে এবার খবর, খুব দ্রুতই তাঁদের বিয়ে হতে যাচ্ছে। আর তাতে কিছুটা মৌন সম্মতিও মিলল নায়িকা এশার!

হার্দিক পাণ্ডিয়ার সঙ্গে এশার প্রথম সাক্ষাৎ হয় একটি পার্টিতে। এরপর থেকেই তাঁরা ডেটিং শুরু করেন।

বিয়ের গুঞ্জন নিয়ে এবার মুখ খুললেন বলিউড নায়িকা এশা গুপ্তা। হার্দিক পাণ্ডিয়া বিয়ে করবেন কি না, এর খোলা উত্তর এড়িয়ে গিয়েই বললেন, ‘খুব শিগগিরই বিয়ে করছি না। তবে বিয়ে করলে সবাইকে জানাব।’

হার্দিকের সঙ্গে যে সম্পর্ক রয়েছে, তা অস্বীকার করেননি এশা গুপ্তা। তবে বিয়ের ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে, বেশ জোরেসোরে না বলেন তিনি। বলেন, ‘বিয়ে করলেই ঘটা করেই করবেন।’ ভারতের বিনোদন বিষয়ক পোর্টাল পিংকভিলা ডটকমের বরাত দিয়ে এনডিটিভি এ খবর জানায়।

এ বছরের শুরুর দিকে আরেক অভিনেত্রী ইলি আব্রামের সঙ্গে ক্রিকেট অলরাউন্ডার হার্দিক পাণ্ডিয়ার প্রণয়ের গুঞ্জন রটে। মুম্বাইয়ের বিভিন্ন স্থানে পাপারাজ্জিদের ক্লিকেও ধরা পড়েন তাঁরা। ইলি ও পান্ডিয়াকে বিভিন্ন স্থানে একসঙ্গে দেখা যায়। এমনকি ডিনার পার্টিতে অংশ নেন তাঁরা। গুরগাঁওয়ে অবস্থিত ফিল্মিস্তান স্টুডিওতে একবার ইলি যান, যেখানে পান্ডিয়ার একটি বিজ্ঞাপনের শুটিং চলছিল।

কিন্তু কয়েক মাস না যেতেই তাঁদের সম্পর্কে ফাটল ধরে এবং বিচ্ছেদের খবর শোনা যায়। জানা যায়, প্রতিশ্রুতি বিষয়ে মনোমালিন্যের কারণেই এ বিচ্ছেদ। সংবাদমাধ্যম ডিএনএর এক প্রতিবেদনে লেখা হয়, ইলি না কি হার্দিকের কাছ থেকে পাকাপাকি প্রতিশ্রুতি চেয়েছিলেন। এ নিয়ে তাঁদের মধ্যে মন কষাকষি হয়। অবশেষে জুনে তাঁরা আলাদা হয়ে যান।

এরপরই ‘বাদশাহো’, ‘হেরা ফেরি-৩’, ‘টোটাল ধামাল’ খ্যাত নায়িকা এশা গুপ্তার সঙ্গে রোমান্সের খবর বাতাসে ভাসে। ডিএনএ জানায়, এশার সঙ্গে পাণ্ডিয়ার সম্পর্ক গভীর হচ্ছে। তবে তাঁরা মিডিয়াকে এড়িয়ে যেতে চাইছেন।

‘এখন দুজনের মধ্যেই গোপন সম্পর্ক চলছে। তাঁরা দুজনেই দেখতে চান এরপর কী হয়। তাঁরা তাঁদের লাঞ্চ ও ডিনারের পরিকল্পনা খুব গোপনভাবে করেন এবং মানুষের দৃষ্টি এড়াতে চান। এখন তাঁরা আসলে পরস্পরকে ভালোভাবে চেনা-জানার অবস্থায় আছেন।’

এশার ঘনিষ্ঠ সূত্র জানায়, একটি পার্টিতে তাঁদের দেখা হয়। এরপর দ্রুতই তাঁরা নাম্বার বিনিময় ও আলাপ শুরু করেন। তবে সত্যিই তাঁরা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হবেন কি না, তার জন্য তো অপেক্ষা করতে হবে!