লাইফস্টাইল

‘কে এসেছিল রাতে’ প্রিয়াঙ্কাকে প্রশ্ন

সিঙ্গেল মাদার’ হিসেবে ছেলে সহজকে বড় করে তুলছেন প্রিয়াঙ্কা সরকার। নিজের জীবনের মতো এবার সেই একই ধারা বজায় থাকল রুপালি পর্দাতেও। অর্থাত এবার পরিচালক বিরসা দাসগুপ্তের সিনেমায় অন্য ৪ জন লড়াকু নারী চরিত্রের সঙ্গে উঠে উঠেছে সুজির (প্রিয়াঙ্কা) চরিত্রটিও। যেখানে ছবি এঁকে, একজন সিঙ্গেল মাদার হিসবে ছেলেকে বড় করে তুলছেন সুজি। আর এবার সিঙ্গল মাদার হয়ে কী কী কথা শুনতে হয়, তাই প্রকাশ করলেন প্রিয়াঙ্কা সরকার।

যেখানে সিঙ্গেল মাদার হয়ে কখনও কটাক্ষ শুনতে হয় প্রিয়াঙ্কাকে। আবার মা হয়ে কেন অন্যরকম পোশাক পরে ছবি আপলোড করেন, সেই প্রশ্নও শুনতে হয়। আবার কখনও মা-এর এমন পোশাক দেখলে ছেলে কী শিখবে বলেও তোলা হয় প্রশ্ন। আবার কখনও ছেলেকে স্কুলে দিয়ে কোথায় যান, এমন প্রশ্ন-ও করা হয় প্রিয়াঙ্কা সরকারকে দেখে। আবার কখনও গত রাতে কে এসেছিল বাড়িতে, সিঙ্গেল মাদারকে দেখে কখনও সেই প্রশ্নও উঠে আসে প্রতিবেশীদের মুখে। আবার কখনও আবার বিয়ে করলে আপনার ছেলের উপর প্রভাব পড়বে, এমন তীব্র আক্রমণের মুখেও পড়তে হয় সিঙ্গল মাদার-দের।

যদিও, সিঙ্গেল মাদার-কে এমন প্রশ্ন, কটাক্ষ এখন আর গায়ে লাগে না। বরং এসবের সঙ্গে তিনি ধাতস্ত হয়ে গিয়েছেন বলেও জানান প্রিয়াঙ্কা সরকার। শুধু তাই নয়, সিঙ্গল মাদার-দের দেখে মানুষ যাতে এই ধরনের ভিত্তিহীন কথাবার্তা বন্ধ করেন, ‘ক্রিসক্রস’-এর প্রমোশনে সেই আশাও প্রকাশ করেন প্রিয়াঙ্কা সরকার। সবকিছু মিলিয়ে মানুষ যাতে অন্যকে অপমান, অপদস্ত করার আগে হাজারবার ভাবেন, সেই আশাই প্রকাশ করেন টলিউডের এই অভিনেত্রী। পাশাপাশি আরও বলেন, তাঁরা (সিঙ্গল মাদার-রা) ভাল আছেন। নিজেদের মতো করে আছেন।

প্রসঙ্গত, ১০ অগাস্ট মুক্তি পাবে বিরসা দাসগুপ্তের ‘ক্রিসক্রস’। এই সিনেমায় পাঁচ নারীর লড়াকু জীবনের কথা তুলে ধরা হয়েছে। আর এই ৫ নারী চরিত্রে অভিনয় করছেন প্রিয়াঙ্কা সরকার, সোহিনী, জয়া আহসান, নুসরাত এবং মিমি চক্রবর্তী। জিনিউজ