বিনোদন

কুমার শানুর গোপন রহস্য ফাস !

এফপি

ডেস্কনিউজ; বাংলা ও হিন্দি চলচ্চিত্রে অসংখ্য কালজয়ী গান উপহার দেওয়া নব্বইয়ের দশকের আলোচিত সংগীতশিল্পী কুমার শানু। এই শিল্পী ব্যক্তিগত জীবনে বেশ প্রাণখোলা। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তেমনটিই দেখা যায়। এমন একজন শিল্পীই দীর্ঘদিন গোপন রেখেছিলেন এক অপ্রিয় সত্য। রক্ষণশীল সমাজে যে সত্য অপ্রিয় বলেই বিবেচিত।

সম্প্রতি মেয়ে শ্যাননকে দত্তক নেওয়ার কথা জানিয়ে বোমা ফাটিয়েছেন কুমার শানু। দীর্ঘ ১৭ বছর পর এমন সত্য সামনে আনলেন ‘ধীরে ধীরে সে জিন্দেগী ম্যায় আনা’ খ্যাত এই সংগীতশিল্পী। রিয়্যালিটি শো ‘দিল হ্যায় হিন্দুস্তানি ২’ তে এমনটি জানান তিনি।

কুমার শানুর মেয়ে শ্যাননের এখন ১৮ বছর বয়স। ২০০১ সালে তাঁকে দত্তক নিয়েছিলেন কুমার শানু দম্পতি। লোকজন তাঁকে শ্যাননের জন্মদাতা পিতা হিসেবেই জানতেন। বলিউডে যেখানে লাইমলাইট কেড়ে নেওয়ার খেলায় একের পর এক তারকা সন্তানদের নাম প্রকাশ্যে আসতে থাকে, সেখানে কন্যা সন্তান দত্তক নেওয়ার কথা তিনি কাউকে জানাননি।

মেয়ের সম্মানের কথা বিবেচনা করেই এতদিন বিষয়টি লুকিয়েছিলেন। শুরুতে জানালে শ্যাননের মানসিক বিকাশে বাধা হতে পারে ভেবে বদ্ধমূল সমাজের কাছে বিষয়টি গোপন রেখেছিলেন কুমার শানু। রিয়্যালিটি শো-তে তিনি বলেন, সমাজের ভয়ে বিষয়টি কখনো জানাতে চাইনি। জানালে সমাজ বিষয়টি কিভাবে নেবে এটা ভেবেই আতঙ্কিত হতাম। মেয়ের ভবিষ্যতের কথা ভেবেই বিষয়টি গোপন করেছিলাম। এখন যেহেতু সামনে এলো, তাহলে বলি- আমি শ্যাননের জন্য গর্বিত। আমি কখনো মনে করিনা সে অন্য কারও সন্তান।’

শ্যানন সম্পর্কে বলতে গিয়ে কুমার শানু বলেন, ‘সে ভীষণ পরিশ্রমি। এই বয়সে সে অনেক কিছু অর্জন করেছে। তাঁর জন্য হলিউডও আজ আমাকে চেনে। আমার গোটা পরিবার তাঁকে নিয়ে গর্বিত।’

শ্যানন নিজেও একজন সংগীতশিল্পী। গান গাওয়ার পাশাপাশি তিনি লিখেও থাকেন। তাঁর ‘লং টাইম’ শিরোনামের একটি অ্যালবাম প্রযোজনা করেছেন বিখ্যাত পপ গায়ক জাস্টিন বিবার।