লাইফস্টাইল

কারচুপি রুখতে কলকাতায় নীল বরফ

নীল-সাদা কলকাতায় এবার বরফও নীল-সাদা। রাশিয়া বিশ্বকাপে ঠিক এই মুহূর্তে আর্জেন্টিনার অবস্থা যতই করুণ হোক, বরফের প্রকারভেদে মারাদোনা-মেসিদের জার্সির রঙেই ভরসা রাখছে শহর কলকাতা। এবার থেকে শহরে দেখা যাবে নীল বরফ! কিন্তু, ব্যাপারটা ঠিক কী?

দীর্ঘদিন ধরে মহানগরীর ঠান্ডা পানীয়ের দোকানে দেখা মেলে বাণিজ্যিক বরফের। অথচ এই বরফ তো সাধারণের পান করার যোগ্য নয়। কিন্তু, মুনাফালোভী ব্যবসায়িক মানসিকতা কবে আর বিধি-নিষেধ, নীতি-নৈতিকতার ধার ধরেছে! তাই অনায়াসেই জীবনের অপর নাম জল তার জমাট অবতারে হয়ে উঠেছে বিভীষিকা! আর তাই চিহ্নিত করণের উদ্দেশ্যে বাণিজ্যিক বরফে নীল রঙ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পৌরসভা। ফলে, বাণিজ্যিক বরফ এবার থেকে নীল রঙের এবং পানীয় বরফ বর্ণহীন (বা, সাদা)।

সূত্রের খবর, মাছ, মাংস কিংবা অন্য কোনও খাবার সংরক্ষণে এই নীল বরফ ব্যবহার করা হবে। বর্তমানে বাণিজ্যিক বরফ পিছনের দরজা দিয়ে চলে যাচ্ছে ঠাণ্ডা পানীয়ের দোকানে। গত দু’বছরে বারবার প্রকাশ্যে এসেছে এই অভিযোগ। অনিয়মের প্রমাণও মিলেছে। তারপরেই বেআইনি কারবার রুখতে কোমর বাঁধে কলকাতা পুরসভা। তার ফল স্বরূপ বাণিজ্যিক বরফকে ভেষজ পদ্ধতিতে নীল রং করে দেওয়া হচ্ছে। যাতে কোনওভাবেই তা ঠাণ্ডা পানীয়তে ব্যবহার করা না যায়। মহারাষ্ট্রে এই পদ্ধতিতেই বরফ রং করা হয়। কলকাতা পুরসভার একটি দল মহারাষ্ট্রে গিয়ে সেই পদ্ধতি শিখে এসেছে।