আর্ন্তজাতিক

এবার ভারতীয়রাও ওড়াল জৈব-জ্বালানি বিমান

ইতিহাস সৃষ্টি করে ভারতের প্রথম জৈব-জ্বালানি ব্যবহৃত বিমানের পরীক্ষামূলক সফল অবতরণ ঘটল নয়া দিল্লিতে। এই সফল অবতরণের ফলেই উন্নয়নশীল দেশগুলোর মধ্যে প্রথম হিসেবে ইতিহাস সৃষ্টি করল ভারত।

উন্নত দেশগুলোর মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া এবং কানাডা ইতিমধ্যেই অসামরিক বিমানে জৈব জ্বালানি ব্যবহার করছে। এবার বিশ্বের এই দেশগুলোর তালিকায় নাম লেখাল ভারত।

৭৫% জেটফুয়েল বা বিমান জ্বালানি এবং ২৫% বায়োফুয়েল বা জৈব-জ্বালানি ব্যবহৃত স্পাইসজেটের বিমানটির সফল অবতরণ করে ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ‘টার্মিনাল ২’-এ। ৭২ আসনের বিমানটি দেরাদুন থেকে দিল্লি আসে।

গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া ও এনডিটিভির রিপোর্ট অনুযায়ী, শিগগিরই দিল্লি থেকে দেরাদুন পর্যন্ত পুরোপুরি জৈব-জ্বালানি ব্যবহৃত বিমান চালাবে স্পাইসজেট।

প্রসঙ্গত, জৈব জ্বালানির ব্যবহার বাড়িয়ে চার বছরে ১২ হাজার কোটি রুপি বাঁচানোর লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে মোদি সরকার। আখ থেকে চিনি তৈরির সময়ে পাওয়া ইথানল পেট্রলে মিশিয়ে জৈব-জ্বালানি তৈরি করার চিন্তাভাবনা করেছিল ভারত সরকার।

এ-সংক্রান্ত পরিকাঠামোতে জোর দিয়ে তেল আমদানি খাতে বিপুল খরচ বাঁচানোর লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে। আগস্টেই বিশ্ব জৈব-জ্বালানি দিবসের অনুষ্ঠানে ১০ হাজার কোটি বিনিয়োগ করে ১২টি জৈব শোধনাগার তৈরির কথা বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি জৈব-জ্বালানির ওপর জিএসটি চার্জও কমিয়ে দিয়েছে সরকার।
টাইমস অব ইন্ডিয়া, এনডিটিভি