আর্ন্তজাতিক

আফ্রিকান দেশ বৃহস্পতিবার তাইওয়ান সঙ্গে তার “কূটনৈতিক” সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত ঘোষণা

ছবি- নিউজ . কম

চীন, বুর্কিনা ফাসো কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনরায় চালু
চীন ও বুর্কিনা ফাসো শনিবার চীনের রাষ্ট্রীয় কাউন্সিলর ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই এবং বুরকিনা ফাসোর পররাষ্ট্র মন্ত্রী আলফার ব্যারি বেইজিংয়ের স্বাক্ষরিত যুগ্ম যোগাযোগের কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনরায় শুরু করার ঘোষণা দিয়েছে।
যোগাযোগমন্ত্রী বলেন, দু’দেশের জনগণের স্বার্থ ও শুভেচ্ছা নিয়েই এই সম্পর্ক পুনঃপ্রতিষ্ঠা করা উচিত।
উভয় সরকার সার্বভৌমত্বের পারস্পরিক শ্রদ্ধার নীতি এবং আঞ্চলিক অখণ্ডতা, অ আক্রমণাত্মক, একে অপরের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নন-হস্তক্ষেপ, সমতা, পারস্পরিক সুবিধা এবং শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানের ভিত্তিতে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতে সম্মত হয়।
বুরকিনা ফাসো সরকার স্বীকার করে যে, চীনের জনগণ চীনের একমাত্র বৈধ সরকার, সমগ্র চীনের প্রতিনিধিত্ব করে এবং চীনের ভূখণ্ডের তাইওয়ান একটি অবিচ্ছিন্ন অংশ।
বুর্কিনা ফাসো সরকার প্রতিশ্রুতি দেয় যে এটি কোনও আঞ্চলিক সম্পর্ক বা তাইওয়ানের সাথে আনুষ্ঠানিক বিনিময় হবে না।
আফ্রিকান দেশ বৃহস্পতিবার তাইওয়ান সঙ্গে তার “কূটনৈতিক” সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত ঘোষণা। সূত্র- ডেইলি চাইনা ।